আদালতে ইংলাক বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

আমাদের নতুন সময় : 20/05/2015

Inglakআন্তর্জাতিক ডেস্ক : ক্ষমতায় থাকাকালে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে আদালতে হাজির হয়েছেন থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা। বিবিসি বলছে, থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের একটি আদালতে হাজির হয়েছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে বিতর্কিত চাল কেনা প্রকল্পে ভর্তুকিতে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ইংলাকের সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারদণ্ড হতে পারে। বরাবরই এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছেন ইংলাক। এ ঘটনাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেছেন তিনি। ২০১৪ সালে ইংলাককে জোর করে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। আদালতে হাজির হওয়ার পর ইংলাক সাংবাদিকদের বলেন, তিনি নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। অন্যদিকে ইংলাক সিনাওয়াত্রার বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ব্যাংককের একটি আদালত। মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ২১ জুলাই তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। বিতর্কিত এই মামলাটির প্রথম শুনানি মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি চলাকালে ৪৭ বছর বয়সী ইংলাকের বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ৩ কোটি বাথ (প্রায় ৯ লাখ মার্কিন ডলার) বন্ডের বিনিময়ে জামিন মঞ্জুর করা হয়। মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন চালে ভর্তুকি প্রকল্পে অবহেলা প্রদর্শন করেন ইংলাক। এর ফলে সরকারি কোষাগারের ১৮৪০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়। আদালতে নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইংলাক। দেশটিতে ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়ে দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় বসেন ইংলাক সিনাওয়াত্রা। ২০১৪ সালে দেশটির সাংবিধানিক আদালত ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে তাকে পদত্যাগ করার রায় দেয়। এরপর ওই বছরেরই মে মাসে সেনাবাহিনী তাকে পদচ্যুত করে ক্ষমতা দখল করে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে ক্ষমতাসীন সামরিক সরকার পার্লামেন্টে ভোটের মাধ্যমে ইংলাককে অভিশংসিত করে। পাশাপাশি রাজনীতিতে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি। ইংলাকের বড় ভাই থাকসিন সিনাওয়াত্রাকে ২০০৬ সালে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদচ্যুত করেছিল সেনাবাহিনী। বর্তমানে তিনি নির্বাসনে রয়েছেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]