৬১ বছরের ঐতিহাসিক প্রথা ভেঙে গাড়ি নিয়ে সৌদির রাস্তায় নারীরা

আমাদের নতুন সময় : 25/06/2018

ওমর শাহ: ৬১ বছর ধরে নারীদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ থাকার পর গতকাল রোববার থেকে সৌদি আরবের পথে পথে গাড়ি চালিয়ে ঐতিহাসিক প্রথা ভেঙ্গে দিল সৌদি নারীরা। গত বছর নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দিয়ে রাজকীয় ডিক্রি জারি হওয়ার পর গতকাল ২৪ জুন রাত বারটার পর থেকে নারীদের গাড়ি চালানোর বিষয়টি বাস্তবে রূপ নেয়। সৌদির জিদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম সহ নানা শহরে ড্রাইভিং লাইসেন্সপ্রাপ্ত নারীরা রাত ১২ টার পর থেকে গাড়ি চালিয়ে ঐতিহাসিক এ দিনটির সূচনা করে। নারীদের গাড়ি চালানোর দৃশ্য সৌদি ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো পর্যন্ত সরাসরি সম্প্রচার করে। গত এক বছর যাবত নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ ও লাইসেন্স প্রদানের কাজ সম্পন্ন করার পর গতকাল রোববার থেকে ঐতিহাসিক এ দিনটি শুরু হলো। ১৯৫৭ সালে নারীদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ করেছিল সৌদি সরকার। খবর: আরব নিউজ
এদিকে নারীদের এ পথচলাকে স্বাগত জানিয়েছে সৌদি আরবের নানা সামাজিক সংগঠন। এরআগে সৌদি আরবের ট্রাফিক কন্ট্রোল প্রতিষ্ঠান এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, সৌদি নারীরা যেন নির্ধারিত দিনের আগে গাড়ি পথে না নামায়। কেউ এ নির্দেশনা ভেঙ্গে গাড়ি চালালে তাকে ৫০০-৯০০ রিয়াল জরিমানা ও গাড়ি জব্দ করা হবে। নারীদের ড্রাইভিং সীটে বসা ও গাড়ি চালানের বিষয়ে দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। নারীদের এ স্বাধীনতা অর্জনকে স্বাগত জানিয়েছে অনেক ইউজাররা। অনেক পুরুষ ড্রাইভার নারীদের সতর্কতার সঙ্গেও গাড়ি চালানোর পরামর্শ দেন। নারীরাও এ নিশ্চয়তা দিয়েছেন তারা ট্রাফিক আইন মেনেই গাড়ি চালাবেন ও বিপদজনক পথ এড়িয়ে চলবেন। এসময় একজন সৌদি নারী মানবাধিকারকর্মী নারীদের গাড়ি চালানোতে সাফল্য বয়ে আনারও পরামর্শ দেন। সম্পাদনা: কাজী ফরহাদ হোসেন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]