আজ ক্রাইস্টার্সে ঘুরে দাঁড়াতে চায় মাশরাফিরা

আমাদের নতুন সময় : 16/02/2019

এল আর বাদল : নিউজিল্যান্ডের নেপিয়ারে তো হল না, এবার  সে দেশের ক্রাইস্টার্সে নাকি বদলে যাবে টাইগাররা। এমন আভাস দিয়েছেন দলপতি মাশরাফি বিন মোর্তুজা। বাংলাদেশের ক্রিকেটীয় ইতিহাসে এখনও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ম্যাচ জেতা হয়নি। এবারের সফরে ওই ব্যর্থতা কাটিয়ে ওঠার প্রত্যয় নিয়ে টাইগাররা দেশ ছাড়লেও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে হেরে ব্যর্থতার বৃত্তেই থাকলো। এ পর্যন্ত সে দেশে তিন ফরম্যাটে ২২টি ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ।

আজ শনিবার ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামবে টাইগার সেনারা। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার দিবাগত রাত ৪টায় ম্যাচ শুরু হবে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে এর আগে মাত্র একটি ম্যাচই খেলেছে বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের জন্য সুখবর হচ্ছে, ২০১০ সালে খেলা ওই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ২৪১ রান করেছিল টাইগাররা। কিন্তু দুঃসংবাদ হচ্ছে, ওই ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি করা ইমরুল কায়েস এবার দলের সঙ্গে নেই। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলা সাকিব আল হাসানও ইনজুরির কারণে খেলছেন না।

যে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্রাইস্টচার্চে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তাদের তিনজনের কেউ আবার সেই ম্যাচে ব্যক্তিগত স্কোরকে ডাবল ফিগারেও নিয়ে যেতে পারেননি।

এ অবস্থায় এবার ক্রাইস্টার্চে গিয়ে কতোটা বদলাবে টাইগারদের পারফরম্যান্স? এ প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে ক্রিকেট প্রেমীদের। সফরের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের ব্যাটিং ধসের পেছনে প্রধান কারণ নিউজিল্যান্ডের বোলারদের গতিময় বোলিং। মাশরাফিরা যেখানে ১৩০ কিংবা ১৩৫ কিলোমিটার গতির বলে খেলে অভ্যস্ত, সেখানে কিউই পেসারদের গতি ১৪০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার।

গতির সঙ্গে তাল মেলাতে না পেরেই টাইগাররা বাইশগজে গিয়ে তালগোল পাকিয়ে ফেলেছিলেন। মাশরাফিদের ব্যাটিংয়ে ভালো করতে না পারার পেছনে আরেকটি কারণ ছিল কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে না পারা। কারণ নিউজিল্যান্ডে গিয়ে খাপ খাইয়ে নেওয়ার জন্য এক সপ্তাহ সময়ও পাননি ক্রিকেটাররা। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে অনুশীলনের অভাব।

টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের জন্যই আলাদা করে প্রস্তুতি নেওয়া হয়। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের জন্য বলতে গেলে কোনো প্রস্তুতিই  নেওয়ার সুযোগ পাননি ক্রিকেটাররা। বিপিএলে খেলে ক্লান্ত হওয়ার পর সরাসরি চলে গেছেন নিউজিল্যান্ডে।

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]