সব দায় ভোটারের

আমাদের নতুন সময় : 02/03/2019

মাসুদ কামাল : নির্বাচনের সময় ভোটকেন্দ্রে ভোটার কীভাবে আসবে? সে নিজে থেকেই আসবে, নাকি কেউ তাকে নিয়ে আসবে? নাগরিক হিসেবে নিজের দায়িত্ববোধ দ্বারা তাড়িত হয়ে ভোটাররা নিজে নিজেই ভোটকেন্দ্রে হাজির হবে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে, নাকি রাজনৈতিক দল কিংবা প্রার্থী নানাভাবে প্ররোচিত করে বা প্রলোভন দেখিয়ে ভোটারকে নিয়ে আসবে ভোটকেন্দ্রে?
অন্য কোনো দেশে বা অন্য কোনো সময়ে হলে হয়তো এমন সব প্রশ্নকে নিতান্তই অপ্রাসঙ্গিক কিংবা হাস্যকরও মনে হতে পারতো। কিন্তু বাংলাদেশে এই সময়ে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। এই বিষয়ে এরই মধ্যে নানা রকম মত পাওয়া যাচ্ছে। খোদ প্রধান নির্বাচন কমিশনারও একটা বিশেষজ্ঞ মত দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের নিয়ে আসা নাকি রাজনৈতিক দলগুলো এবং ভোটারদের দায়িত্ব।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ কথাগুলো বলেছেন ২৮ ফেব্রুয়ারি, ঢাকা উত্তর সিটির উপনির্বাচনের সময়। এ নির্বাচনে বিএনপি কোনো প্রার্থী দেয়নি। নির্বাচনে সরকার এবং নির্বাচন কমিশনের আচরণের ওপর আস্থা রাখতে না পেরে তারা নির্বাচন বয়কট করেছে। এর প্রতিফলন দেখা গেছে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই। প্রচারণাও কিছুমাত্র জমেনি। তারপরও নির্বাচন হয়ে গেছে, আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতিকুল ইসলাম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। কোনো কোনো কেন্দ্র বেলা দশটা পর্যন্ত ভোটশূন্য থেকেছে। আর তখনই প্রধান নির্বাচন কমিশনার দিয়েছেন ওই স্মরণীয় বাণী।
কেন মানুষ ভোট দিতে যায়নি, কেন প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি এ নির্বাচনে অংশ নেয়নি, কেন তাদের এই নির্বাচন কমিশনের ওপর আর আস্থা নেই, এমনকি কেন অনেক মানুষের ভোটের ওপর থেকে আগ্রহই উঠে গেছে- সেসব নিয়ে অনেক কথা বলা যায়। কিন্তু আজকে বরং সীমাবদ্ধ থাকতে চাই সিইসির ওই আপ্তবাক্যটি নিয়ে। আসলেই কী ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসার দায়িত্ব রাজনৈতিক দলগুলোর? কিংবা প্রার্থীদের? আগে নির্বাচনের সময় দেখতাম, প্রার্থীরা ভোটারদের, বিশেষ করে নারী ভোটারদের, ভোটকেন্দ্রে আনতে বাড়ি বাড়ি রিকশা পাঠিয়ে দিতো। এ নিয়ে হইচই হতো। বলা হতো এটা ঠিক নয়। এটা অনৈতিক, উৎকোচ প্রদানের নামান্তর। এভাবে ভোটারদের মতপ্রকাশে প্রভাব বিস্তার করা হয়। যতোদূর জানি, এভাবে ভোটারদের কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে আসাকে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। তাহলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এমন কথা কী করে বললেন? তিনি আরও বলেছেন, ভোটারদের কেন্দ্রে নিয়ে আসা নাকি নির্বাচন কমিশনের কাজ নয়। এটাও কী ঠিক? নির্বাচন কমিশনের কাজ একটু সুস্থ ও সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি করা। সামগ্রিক পরিবেশ দেখে যদি ভোটারের মনে হয় তার ভোটাধিকারের যথাযথ মূল্যায়ন হবে, কেবল তাহলেই না সে আগ্রহ অনুভব করবে। সেক্ষেত্রে দায়টা সেই নির্বাচন কমিশনের ওপরেই কী পড়লো না? নাকি নিজের দায় এড়াতেই সিইসির ওইসব এলোমেলো কথা?
লেখক : সিনিয়র নিউজ এডিটর, বাংলাভিশন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]