হ্যামিল্টনে ইনিংস হার এড়ানোই চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশের

আমাদের নতুন সময় : 03/03/2019

শিউলি আক্তার : নিউজিল্যান্ডের সামনে পড়লেই যেন এলোমেলো হয়ে যায় বাংলাদেশ দল। বিশেষ করে টেস্ট ক্রিকেটে। লংগার ভার্সনের ম্যাচে কিউইদের বিরুদ্ধে কখনোই প্রতিরোধ গড়তে পারেনি টাইগাররা। হ্যামিল্টনে তিন টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনেও সেই একই চিত্র দলের। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং ব্যর্থতার পর দ্বিতীয় ইনিংসেও চাপে পড়েছে সফরকারীরা। এমনকি ইনিংস হারের চোখ রাঙানিও দেখতে পাচ্ছে মাহমুদউল্লাহরা।
৪৮১ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস খেলতে নেমে ১৭৪ রানে দিন পার করেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো এই রান তুলতে গিয়ে হারাতে গিয়ে তামিম, সাদমান, মুমিনুল ও মিঠুন প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন। ৩০৭ রানে পিছিয়ে থেকে দিন পার করেছে বাংলাদেশ। এর আগে স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে রান তুলেছে উইকেটে ৭১৫। ছয় উইকেটে এই রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছেন নিউজিল্যান্ড দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ৩৯ রান নিয়ে সৌম্য তার সাথে মাহমুদউল্লাহ (১৫) নিয়ে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন। এর আগে তামিম দুর্ভাগ্যজনকভাবে ৭৮ রানে আউট হয়ে যান। টিম সাউদির করা লেগ স্টাম্পের অনেক বাইরের শর্ট বলটা সরে গিয়ে ডাক করতে গিয়ে পড়ে গেলেন। ভারসাম্য হারিয়ে তামিম মাটিতে পড়ে গেলে উঁচিয়ে ধরা ব্যাটের কানায় লেগে বল চলে যায় কিউই উইকেটকিপারের গ্লাভসে। সাদমান (৩৭), মুমিনুল হক (৮) রান করে আউট হয়ে যান। কোনো রান না করেই ফেরত যান মোহাম্মদ মিঠুন।
এর আগে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে তিনজনই তুলে নেন সেঞ্চুরি। অধিনায়ক তুলে নেন ডাবল সেঞ্চুরি। হাফ সেঞ্চুরিও করেন দুজন। সব মিলিয়ে ছয় উইকেটে যখন তারা ইনিংস ঘোষণা করে তখন দলের স্কোর ৭১৫। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান জিত রাভাল (১৩২) ও টম ল্যাথাম (১৬১) সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশ তাদের প্রথম উইকেট লাভ করে ২৫৪ রানে। এরপর কেন উইলিয়াম এসে হাকান ডাবল সেঞ্চুরি। হাফ সেঞ্চুরি করেছেন গ্র্যান্ডহোমে (৭৬) ও নিকোলস (৫৩)। বাংলাদেশের পক্ষে সৌম্য ও মিরাজ দুটি করে এবং ইবাদত ও মাহমুদউল্লাহ একটি করে উইকেট নেন।


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]