ড্রর স্বপ্ন কী দেখতে পারে বাংলাদেশ?

আমাদের নতুন সময় : 12/03/2019

এল আর বাদল : নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশের মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের প্রথম দুটি দিন গেলো বৃষ্টির পেটে। তিনদিন হাতে নিয়ে লড়াইয়ে নামে দুই দল। হিসাব মতে গতকাল ছিলো চতুর্থ দিন। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ ৩ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ৮০ রান। এখনো নিউজিল্যান্ডের চেয়ে পিছিয়ে ১৪১ রানে।
প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ২১১ রানের জবাবে স্বাগতিকরা ৪৩২ রান করে ইনিংস ঘোষণা দেয়। ওয়েলিংটন টেস্ট বাঁচাতে আজ মঙ্গলবার পুরো দিন টিকে থাকতে হবে বাংলাদেশকে। আর জিততে হলে নিউজিল্যান্ডকে নিতে হবে ৭ উইকেট।
বৃষ্টিতে প্রথম দুই দিন নষ্ট হওয়ার পর টাইগার কোচ স্টিভ রোডসের ভবিষ্যদ্বাবাণীই শেষ পর্যন্ত বাস্তবরূপ নিতে যাচ্ছে। তিনি বলেছিলেন, তিন দিনেও টেস্টের ফল আসবে। কিন্তু ফলটা যে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে আসার সম্ভাবনাই বেশি, নিশ্চয়ই স্টিভ রোডস দ্বিমত করবেন না। ওয়েলিংটন টেস্ট জিততে হলে শেষ দিনে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের লাগবে ৭ উইকেট। আর টেস্টটা যদি ড্র করতে হয়, বাংলাদেশকে টিকে থাকতে হবে পুরো দিন। সবুজ-স্যাঁতসেঁতে ওয়েলিংটনের উইকেটে যা কঠিনই বটে।
তবে মাঠের চিত্র বলছে, তিন দিনেই বাংলাদেশের সামনে ইনিংস ব্যবধানে হারের চোখরাঙানি। ২২১ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই ধাক্কা। প্রথম ইনিংসে ৭৪ রান করা তামিম ইকবাল ফিরে গেছেন ৪ রান করে। এরপর ফিরে গেছেন ১০ রান করা মুমিনুল হক। সাদমান ইসলাম কিছুটা লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিলেও ২৯ রানে তাবুতে ফিরে যান। মোহাম্মদ মিঠুন (২৫) আর সৌম্য সরকার (১২) রানে টিকে আছেন। ৩ উইকেটে ৮০ রান তুলে দিন শেষ করা বাংলাদেশের সামনে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ার চ্যালেঞ্জ। খেলাই আছে এক দিন। আরও নির্দিষ্ট করে বললে তিন সেশন। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]