• প্রচ্ছদ » গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ » ঢাবি শিক্ষকদের অবক্ষয়ের প্রতিফলন হচ্ছে ডাকসু নির্বাচনে অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি, বললেন ডাকসুর সাবেক নেতা, মান্না ও মুস্তাক


ঢাবি শিক্ষকদের অবক্ষয়ের প্রতিফলন হচ্ছে ডাকসু নির্বাচনে অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি, বললেন ডাকসুর সাবেক নেতা, মান্না ও মুস্তাক

আমাদের নতুন সময় : 13/03/2019

মঈন মোশাররফ : দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে উৎসাহ উদ্দীপনা কোনো অংশেই কম ছিলোনা। তাই গত সোমবার ভোট শুরুর আগেই বিভিন্ন হলে ভোটারে দীর্ঘ লাইন দেখা দেয়। তবে ভোট শুরুর পরই পরিস্থিতি পালটে যেতে থাকে। কুয়েত-মৈত্রী ছাত্রী হলে বস্তা ভর্তি সিল (ক্রস) দেয়া ভোট পাওয়ার পর উত্তেজনা দেখা দেয়। ওই হলের প্রাধ্যক্ষকে সরিয়ে দিয়ে তিন ঘণ্টা পর ভোটগ্রহণ শুরু হয়। কোটা সংস্কার আন্দোলনের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নূরু এবং বাম জোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দীও হামলার শিকার হন বলে অভিযোগ করা হয়।
এ প্রসঙ্গে ডাকসুর সাবেক ভিপি মাহমুদুর রহমান মান্না সোমবার জার্মান রেডিও ডয়চে ভেলেকে বলেন, এর আগে ১৯৭৩ সালে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছিলো, তা করেছিল ছাত্রলীগ। তবে তারা সেটা করেও জিততে পারেনি। এবার আবারও ঘটলো আগেই ব্যালট পেপারে সিল দেয়ার ঘটনা। আর এটাও করলো ছাত্রলীগ।
তিনি আরো বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনের দিন আগের রাতে যেমন ব্যালট বাক্স ভরে রাখা হয়েছিল, সেরকমই এবার ডাকসু নির্বাচনে আগের রাতে ব্যালট পেপারে সিল দিয়ে রাখা হয়েছে।
ডাকসুর সাবেক ভিপি মান্না বলেন, গত ১০-১২ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই আদর্শের জায়গা নষ্ট হয়ে গেছে। ফার্স্ট ইয়ারের ছেলেরা হল পাহারা দিচ্ছে। তাদের কথামত ভোট দিতে বাধ্য করেছে। তারপরও ইতিবাচক দিক হলো এত কিছুর পরও ব্যালট জালিয়াতি সাধারণ শিক্ষার্থীরা ধরেছেন, তার প্রতিবাদ করেছেন।
তিনি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সেই নৈতিকতা আর নেই। থাকলে যারা নির্বাচনের সঙ্গে জড়িত তারা এটা কীভাবে হতে দিলেন।
একই প্রসঙ্গে ডাকসুর সাবেক জিএস ডা. মুশতাক হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, সকাল বেলা কুয়েত মৈত্রী হলের ঘটনা দেখেতো হতাশ হয়েছি। পরে আরো জানলাম অনাবাসিক ছাত্রদের ভোট দিতে দেয়নি ছাত্রলীগ। ভোটের লাইন তারা নানা কৌশলে দখলে রেখেছে। ভয়ভীতি দেখিয়েছে।
তিনি বলেন, অতীতে এমন ঘটনা ঘটেনি। এবারের ঘটনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে ভাবমূর্তির সংকটে ফেলে দেবে। তারপরও নির্বাচনের মাধ্যমে ২৮ বছরে অচলায়তন ভেঙেছে এটা ভালো দিক। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]