বাজেটের ২৫ শতাংশ জলবায়ু পরিবর্তন প্রতিরোধে বরাদ্দের প্রস্তাব ইইউ দেশগুলোর

আমাদের নতুন সময় : 10/05/2019

লিহান লিমা : জলবায়ু পরিবর্তন প্রতিরোধে উচাকাঙ্খী কৌশলগত পরিকল্পনার ডাক দিয়েছে আটটি ইউরোপিয় দেশ, ইইউ’র বাজেটের এক চতুর্থাংশ এর পেছনে বরাদ্দের প্রস্তাব দিয়েছে তারা। বিবিসি, সিএনবিসি। যৌথ প্রস্তাবে দেশগুলো জানিয়েছে, ২০৫০ সাল নাগাদ ইইউ দেশগুলোকে অবশ্যই গ্রীনহাউস-গ্যাস নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনতে হবে। প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছে ফ্রান্স, বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, লুক্সেমবার্গ, নেদারল্যান্ড, পর্তুগাল, স্পেন ও সুইডেন। তবে ইইউ ২৮সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে জার্মানির মতো কিছু উল্লেখযোগ্য দেশ বিবৃতিতে স্বাক্ষর থেকে অনুপস্থিত ছিলো। এর আগে মার্চে ফাঁসকৃত এক নথিতে দেখা যায়, শূন্য গ্রীনহাউস গ্যাস নিঃসরণ লক্ষ্যমাত্রার বিরোধিতা করেছিলো জার্মানি।

বৃহস্পতিবার রোমানিয়ার সিবিউতে শুরু হওয়া ইউরোপিয় নেতাদের সম্মেলনের পূর্বে এই যৌথ ঘোষণা দেয়া হয়। এই সম্মেলনে পরবর্তী পাঁচ বছরের ইইউ’র কৌশলগত নীতিমালা নির্ধারণ করা হবে। যৌথ বিবৃতিতে ইইউ নেতারা বলেন, ‘তাদের নাগরিকরা, বিশেষ করে তরুণরা জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সরব ও উদ্বিগ্ন।’ এই সময় তারা ইউরোপজুড়ে স্কুল শিশুদের শ্রেণীকক্ষ বর্জন করে আন্দোলনের নেমে আসার ঘটনা তুলে ধরেন। বিবৃতিতে তারা বলেন, সমঝোতার আওতায় ইইউ বাজেটের ২৫ শতাংশ জলবায়ু পরিবর্তন প্রতিরোধে বরাদ্দ করা গুরুত্বপূর্ণ।  প্রতিবছর মাল্টিঅ্যানুয়াল ফিনেন্সিয়াল ফ্রেম্ওয়ার্ক (এমএফএফ) এর আওতায় বাজেটের অর্থ খরচ করে ইইউ।  ২০১৪  থেকে ২০২০ সালে বাজেটে ৯০০ বিলিয়ন ইউরো খরচের অনুমতি আছে।

যৌথ বিবৃতিতে স্বাক্ষর করা আটটি দেশ ২০২১ থেকে ২০২৭ সালের বাজেট থেকে এই বরাদ্দের প্রস্তাব দেয়। এই সময় প্রস্তাবে আরো বলা হয়, বাজেটের মধ্য বিষয়টি অর্ন্তভুক্ত থাকায় ইইউ কার্বন নিঃসরণ ও জলবায়ু সংক্রান্ত কোন বিষয়ে তহবিল বরাদ্দ দেবে না।

এর আগে বৃহস্পতিবার ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ফান্ড ও গ্লোবাল ফুটপ্রিন্ট নেটওয়ার্কের প্রতিবেদনে উঠে আসে, বিশ্বের মাত্র ৭ শতাংশ জনসংখ্যা হলেও পৃথিবীর মোট প্রাকৃতিক সম্পদের ২০ শতাংশ খরচ করে ইউরোপিয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]