শাসক দলের সমর্থন ছাড়া সংখ্যালঘু নির্যাতন করে পার পাওয়া যায় না, বললেন নূর খান

আমাদের নতুন সময় : 22/05/2019

মঈন মোশাররফ : মানবাধিকার কর্মী এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সাবেক নির্বাহী পরিচালক নূর খান মঙ্গলবার ডয়চে ভেলেকে বলেন, বাংলাদেশে বরাবরই সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। রাজনৈতিক অস্থিরতা এবং নীতিহীন রাজনীতি এর জন্য দায়ী। বাংলাদেশ যতই তার অসাম্প্রদায়িক চরিত্র থেকে সরে যাচ্ছে, ততই ধর্মীয় সংখ্যালঘুর ওপর হামলা-নির্যাতন বাড়ছে।

তিনি বলেন, শাসক দলের সমর্থন ছাড়া সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটিয়ে পার পাওয়ার সুযোগ খুবই কম। নেই বললেই চলে। তাই এই ধরনের অপরাধ যারা করে, তারা সব সময়ই রাজনৈতিক দলের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে থাকতে চায়। এই মূহূর্তে বাংলাদেশে শাসক দলের বাইরে অন্যান্য রাজনৈতিক শক্তির তেমন কোনো অবস্থান নেই। এই পরিস্থিতিতে সরকারি দল বা সরকারি দলে ঢুকে দুষ্কৃতকারীরা বা ওই দলের নেতা-কর্মীরা এ ধরনের ঘটনা ঘটতেই পারে। এটা নীতিহীন রাজনীতির ফল।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ পর্যন্ত যেসব সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা দেখেছি, তার টার্গেট হলো তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ দখল ও নারী। আর আমাদের দেশের যে কোনো সরকারেরই প্রশাসনিক লোকজন এই সব নির্যাতন-নিপীড়নের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সব সময়ই উদাসীন। এর একটা কারণ হয়তো ঘটনাগুলোতে অনেক সময়ই শাসক দলের সঙ্গে যুক্ত বা তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে বেড়ে ওঠা লোকজনই এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকে। সিরাজগঞ্জ ও ফরিদপুরের ঘটনা যদি দেখি, তাহলে দেখবো, তারা ক্ষমতা কেন্দ্রের ঘনিষ্ঠ । আমাদের পর্যবেক্ষণ হলো, অধিকাংশ ঘটনায়ই যারা ক্ষমতার কেন্দ্রে আছেন, তাদের আশপাশের লোকজনই এইসব ঘটনায় জড়িত। সেটা জেলা বা উপজেলা যেখানেই হোক না কেন। সম্পাদনা : আবদুল অদুদ

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]