জীবনের প্রয়োজনে রিকশাচালক সেই জাহালম

আমাদের নতুন সময় : 04/06/2019

আরমান কবীর : জাহালম এখন রিকশাচালক। সবার দৃষ্টি এড়িয়ে রাতের অন্ধকারে যাত্রী নিয়ে ফেরেন ঘোড়াশাল পৌর এলাকার অলিগলিতে। সেই জাহালম, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় বিনা অপরাধে যিনি তিন বছর কারাভোগ করেছেন এবং দেশব্যাপী এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠার পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে ছাড়া পেয়েছেন। বাংলাদেশ জুট মিলের এ শ্রমিকের কারামুক্তির পর চাকরিটি ফের মিললেও আজও একদম স্বস্তি মেলেনি তার জীবনে। নরসিংদীর পলাশ শিল্প এলাকায় অবস্থিত বিজেএমসির আওতাধীন ওই মিল থেকে আসন্ন ঈদ উপলক্ষে মাত্র ৩০০ টাকা মজুরি পেয়েছেন এ যুবক। যান্ত্রিক সময়ের ফেরে উপায়হীন জাহালম অগত্যা জীবিকা হিসেবে বেছে নিয়েছেন রিকশা চালানোকে। এ প্রসঙ্গে জাহালম জানান, বিনাদোষে তিন বছর কারাভোগের কারণে শুধু শারীরিকভাবেই নয়, মানসিকভাবেও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন তিনি। আদালতের নির্দেশে বিজেএমসির চেয়ারম্যানের কাছে আবেদন করে এক মাস আগে মিল শ্রমিকের চাকরিটি ফিরে পেয়েছি।

 

এবারের ঈদে মিল কর্তৃপক্ষ ১২ সপ্তাহের মধ্যে ৭ সপ্তাহের মজুরিসহ ঈদ বোনাস দিয়েছে শ্রমিকদের। আমি মজুরি হিসেবে পেয়েছি মাত্র ৩০০ টাকা। আর কাজে উপস্থিত না থাকায় পাইনি ঈদ বোনাস। এই সামান্য পরিমাণ টাকা পেয়ে আমি দিশাহারা হয়ে পড়েছি। আমার একমাত্র সন্তান দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী চাঁদনীর (৮) জন্য ঈদে একটা নতুন জামা পর্যন্ত কিনতে পারিনি। তাই বাধ্য হয়ে রিকশা চালাচ্ছি। লোকলজ্জার কারণে দিনের বেলায় চালাতে সংকোচ হয়। রাতে ঘোড়াশাল পৌর এলাকার অলিগলিতে রিকশা টেনে অতিকষ্টে দিন পার করছি, বলেন তিনি। এত অভাবেও সুখের সন্ধান করে ফেরেন জাহালম। বুক থেকে ওঠে আসা দীর্ঘশ্বাস চেপে রেখে বলেন, এত কষ্টে চলার পরও সন্তান ও পরিবার-পরিজন নিয়ে এবার ঈদ করতে পারব, এও কম সুখের নয়।

গত তিনটি বছর আমার পরিবার আমাকে ছাড়া ঈদ করেছে।এটি যে কত কষ্টের তা আমিই জানি। গত তিনটি বছর আমার স্ত্রী কল্পনা বেগম সংসার টানতে গিয়ে ঘোড়াশালের একটি কারখানায় চাকরি করেছে। তার যৎসামান্য বেতনে কোনোমতে চলত সংসার। কিন্তু আমার মামলা চালাতে গিয়ে সহায়সম্বল সবই খোয়াতে হয়েছে। আমি এখন পথের ভিখারি হয়ে গেছি। সম্পাদনা : ওমর ফারুক


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]


Warning: preg_match(): Unknown modifier 'n' in /home/asnotun/public_html/newsite/wp-includes/template-loader.php on line 106