তারকায় ভরপুর ঢাকাকে গুড়িয়ে বিপিএল শুরু করলো রাজশাহী

আমাদের নতুন সময় : 13/12/2019


আক্তারুজ্জামান : নতুন নিয়মের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে তারকায় ঠাসা দল গড়েও শুরুটা ভালো করতে পারলো না ঢাকা প্লাটুন। রাজশাহী রয়েলসের কাছে ৯ উইকেটে হেরে আসর শুরু করলো মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার লিগের তৃতীয় ম্যাচে গতকাল রাজশাহীকে ১৩৫ রানের লক্ষ্য দিয়েছিলো ঢাকা। জবাবে ১০ বল হাতে রেখে মাত্র ১টি উইকেট খুইয়ে জয়ের বন্দরে তরী নোঙর করে হযরতুল্লাহ জাজাইরা।
শহীদ আফ্রিদি, তামিম ইকবাল, থিসারা পেরেরা, ওয়াহাব রিয়াজ, মাশরাফি মুর্তজা ও লরি ইভান্সের মতো তারকাদের নিয়েও ভালো শুরু করতে পারেনি ঢাকা। অন্যদিকে আন্দ্রে রাসেল, শোয়েব মালিক, হজরতুল্লাহ জাজাই ও লিটন দাসরা ঠিকই বড় জয়ে আসর শুরু করেছে।
১৩৫ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়া নেমে দারুণ শুরু করেন রাজশাহীর দুই ওপেনার লিটন দাস ও হজরতুল্লাহ জাজাই। ৬২ রানের ওপেনিং জুটি গড়ে লিটন ফিরলেও জাজাইকে থামানো যায়নি। ২৭ বলে ৩৯ রানে আরিফুলের বলে ফেরেন লিটন। ৭৪ রানের জুটি গড়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন শোয়েব মালিক ও জাজাই। মালিক ৩৬ বলে ৩৬ এবং জাজাই ৪৭ বলে ৫৬ রানে অপরাজিত থাকেন।
এর আগে মিরপুরের শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ঢাকাকে বিপদে ফেলে ৫ রানে বিদায় নেন তামিম। তবে আনামুল ও লরি ইভান্স একটু চেষ্টা করেন। কিন্তু এ জুটিও বেশি দূর যেতে পারেনি। ১৩ রানে ফেরেন ইভান্স। আনামুল অবশ্য ৩৩ বলে ৩৮ রানের সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেন। তাকে সঙ্গ দিয়ে ১৯ বলে ২১ রান করেন জাকির আলী।
মিডল অর্ডারে নামা পেরেরা, আফ্রিদি, আরিফুল ও মেহেদি কোন রান না করেই সাজঘরে ফেরেন। কিন্তু শেষদিকে ওয়াহাব রিয়াজ ও মাশরাফির ঝড়ো ইনিংসে ১৩৪ রানের মোটামুটি সংগ্রহ দাঁড়ায়। মাশরাফি ১০ বলে ১৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। আর ওয়াহাব ১২ বলে ১৯ রান করেন।
রাজশাহীর হয়ে বল হাতে দুরন্ত ছিলেন আন্দ্রে রাসেল ও অলোক কাপালী। রাসেল ৩ ওভার বল করে উইকেট না পেলেও রান দিয়েছেন মাত্র ৮। কাপালী ৪ ওভারে ১৮ রানে নিয়েছেন একটি উইকেট। সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট এসেছে রান আউট থেকে। ২টি উইকেট নিয়েছেন আবু জায়েদ এবং তাইজুল, ফরহাদ রেজা, রাবি বোপারা ও কাপালীর শিকার একটি করে। সম্পাদনা : ভিক্টর কে. রোজারিও


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]