• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]নতুন করে দরিদ্র হতে চলেছেন স্বল্পোন্নত দেশগুলোর ৮ কোটি নাগরিক [২]ধীরগতির টিকাকরণের জন্য এ তালিকায় থাকবেন বাংলাদেশিরাও


[১]নতুন করে দরিদ্র হতে চলেছেন স্বল্পোন্নত দেশগুলোর ৮ কোটি নাগরিক [২]ধীরগতির টিকাকরণের জন্য এ তালিকায় থাকবেন বাংলাদেশিরাও

আমাদের নতুন সময় : 29/07/2021

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [৩] আইএমএফ-এর ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুক অনুযায়ী ধীরগতির টিকাকরণের জন্যই এই দেশগুলোর অর্থনৈতিক উত্তরণ কষ্টসাধ্য হবে। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান অর্থনীতিবীদ গিতা গোপিনাথ বলেছেন, স্বল্পোন্নত দেশগুলোর ২০২০ ও ২০২১ অর্থবছরের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ০.৪ শতাংশ। [৪] এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২১ সালে বৈশি^ক প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশ হতে পারে। তবে এই আউটলুকে বাংলাদেশের জিডিপি পূর্বাভাস নিয়ে আলাদা করে কিছু বলা হয়নি। এ বছরের এপ্রিলের আউটলুকেই আন্তর্জাতিক ঋণ সংস্থাটি বাংলাদেশের ডিডিপি ৫ শতাংশ বলে পূর্বাভাস দিয়েছিলো। অর্থাৎ অন্য স্বল্পোন্নত দেশগুলোর প্রবৃদ্ধি অনেকটাই কম হবে বাংলাদেশের চেয়ে। সে হিসেবে দরিদ্রের সংখ্যাও কম হওয়ার আশা করা যায়।
[৫] গোপিনাথ বলেন, ‘ভ্যাকসিনই বৈশি^ক অর্থনীতি উদ্ধারের চাবিকাঠি। এখন বিশ^ দুইটি ব্লকে বিভক্ত একটি ঠিকমতো ভ্যাকসিনেশনের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে, অপরটি পিছিয়েই থাকছে। শুধু মৃত্যু নয়, অর্থনীতিরও মৃত্যু ঘটাচ্ছে কোভিড-১৯। [৬] স্বল্পোন্নত দেশগুলোর অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ২০০ বিলিয়ন ডলার প্রয়োজন হবে বলেও জানিয়েছেন গোপিনাথ। এছাড়াও অতিমারি শেষ হলে পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় দরকার হবে আরো ২৫০ বিলিয়ন ডলার। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]