• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]আইসিইউর জন্য হাহাকার, একজন রোগীর মৃত্যু বা স্স্থুতার অপেক্ষায় রোগীর স্বজনরা


[১]আইসিইউর জন্য হাহাকার, একজন রোগীর মৃত্যু বা স্স্থুতার অপেক্ষায় রোগীর স্বজনরা

আমাদের নতুন সময় : 31/07/2021

শিমুল মাহমুদ: [২] ঈদের পর দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগি ভর্তির গ্রাফ উর্ধ্বমুখী। জেলা-উপজেলা-গ্রাম সবখানেই এখন করোনা রোগী। স্থানীয় হাসপাতাল গুলোতে আইসিইউ না থাকায় ঢাকামুখি হচ্ছেন বেশির ভাগ রোগী।
[৩] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ঢাকার সরকারি ১৭ হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হয়। এর মধ্যে তিনটি হাসপাতালে সাধারণ শয্যা থাকলেও আইসিইউ নেই। বাকি ১৪ টি হাসপাতালে ১৩ টি আইসিইউ শয্যা খালি দেখালেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় কোনো আইসিইউ খালি নেই।
[৪] আইসিইউ শয্যা খালি আছে মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে একটি, জাতীয় বক্ষব্যাধি হাসপাতাল ও বিএসএমএমইউ হাসপাতালে দুটি করে, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (নিটোর) ৩টি, ডিএনসিসি করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ৫টি বেড শয্যা রয়েছে। [৫] খুলনা ২০০ শয্যা হাসপাতালের আইসিইউতে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আসিফ ইকবাল বলেন, আইসিইউর সামনে দাঁড়িয়ে থাকে বেড না পাওয়া রোগীর স্বজনরা। অপেক্ষার প্রহর গুণতে থাকে, কোনো রোগী মারা গেলে সেই সদ্য খালি হওয়া আইসিইউর বেডটি তার স্বজনকে দেওয়া হবে। একজন চিকিৎসক হিসেবে এই বিষয়টি আমাকে অনেক পীড়া দেয়।
[৬] ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক জানান, ৭৬২টি সাধারণ শয্যার একটিও ফাঁকা নেই। একটু পরপর রোগী আসছেন। পুরোনো রোগী চলে গেলে কিংবা কারও মৃত্যু হলে শয্যা ফাঁকা হয়। এরপর ওই শয্যায় নতুন রোগী ভর্তি করা হয়। যাদের ভর্তি করা সম্ভব হয় না, তাদের অন্য হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]