[১]কক্সবাজারে পর্যটকের ঢল, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

আমাদের নতুন সময় : 12/09/2021

আমান উল্লাহ : [৩] সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কক্সবাজারে দৈনিক ৫০-৬০ হাজার পর্যটক অবস্থান করছে । সৈকত, আবাসিক হোটেল, মোটেল, কটেজ, বিপণী বিতান ও বিনোদন কেন্দ্র ও পর্যটন কেন্দ্র পর্যটকে মুখরিত।
[৪] ছোট বড় প্রায় চারশতাধিক অবকাশ কেন্দ্রে নতুন করে আসা পর্যটকদের ঠাঁই হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে অনেকে রাত কাটাতে চড়া মূল্যে হোটেলের ছাদে সামিয়ানার নিচে ও আশেপাশে বাড়ি ঘরে রুম ভাড়া নিয়ে।
[৫] ৯৫ শতাংশ পর্যটকের মুখে কোনো মাস্ক নেই। অভিজাত অবকাশ কেন্দ্রগুলো কিছুটা স্বাস্থ্যবিধি মানলেও অন্যান্য হোটেল মোটেলে এসবের তোয়াক্কা নেই।
[৬] হোটেল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম জানান, করোনা সংকটে কক্সবাজারের পর্যটন ব্যবসায়ীরা লোকসানে আছে। লোকসান কাটিয়ে উঠতে ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে রুম ভাড়া দিচ্ছে। তবে পর্যটকরা স্বাস্থ্যবিধি একেবারেই মানছে না। ফলে বড় আকারে করোনা ঝুঁকির মুখে রয়েছে পর্যটন শহর।
[৭] জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশের এসপি জানান পর্যটকদের অবাধ নিরাপত্তা, ভ্রমণ নির্বিঘ্ন করতে ট্যুরিস্ট পুলিশ তৎপর রয়েছে।
[৮] কক্সবাজার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদ জানান, করোনা বিস্তার রোধে পর্যটকদের সচেতনা বাড়াতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যটকদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে। এতো কিছুর পরেও পর্যটকরা স্বাস্থ্য বিধির ব্যাপারে উদাসীন। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]