• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]মুনিয়া হত্যা মামলা তুলে নিতে একটি পক্ষ ভয়ভীতি দেখাচ্ছে, থানায় জিডি [২]বোন নুসরাত বললেন, পিবিআই, ওপর আস্থা আছে, সঠিক তদন্ত হলে ন্যায়বিচার পাবো


[১]মুনিয়া হত্যা মামলা তুলে নিতে একটি পক্ষ ভয়ভীতি দেখাচ্ছে, থানায় জিডি [২]বোন নুসরাত বললেন, পিবিআই, ওপর আস্থা আছে, সঠিক তদন্ত হলে ন্যায়বিচার পাবো

আমাদের নতুন সময় : 18/09/2021

মাসুদ আলম: [৩] কলেজ ছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গত ৬ সেপ্টেম্বর ধর্ষণ ও হত্যা মামলা করেছেন তার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া। ঢাকার ৮ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আগামী ৬ অক্টোবরের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দিয়েছেন। ওইদিন মামলার শুনানি হবে। [৪] পিবিআই তদন্ত দল ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন, বাদীর সঙ্গে কথা বলেছেন। আসামিরা যেন দেশ ত্যাগ করতে না পারে, সে আবেদনের বিষয়ে রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে শুনানি হবে। [৫] পিবিআই ঢাকা মেট্রো দক্ষিণের (অর্গানাইজড ক্রাইম) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সারওয়ার জাহান বলেন, মামলার তদন্তের প্রাথমিক কাজগুলো করছি। এখন পর্যন্ত বলার মতো কোনও অগ্রগতি হয়নি। [৬] মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত বলেন, মামলা তুলে নিতে নানাভাবে হুমকি ও চাপ দেওয়া হচ্ছে। তিনি ও তার স্বামী নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ ঘটনায় তার স্বামী কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি জিডি করেন। মামলা তদন্তে পিবিআইর সুনাম রয়েছে। সঠিক তদন্তে সত্য বেরিয়ে আসবে।
[৭] তিনি আরও বলেন, আনভীর ফুসলিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মুনিয়ার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে তাকে বিয়ে না করে নৃশংসভাবে হত্যা করে। আর এতে তার পরিবারের সদস্যসহ অন্য আসামিরা সাহায্য করে। [৮] আনভীরের পাশাপাশি তার বাবা বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, মা আফরোজা সোবহান, আনভীরের স্ত্রী সাবরিনা, হুইপপুত্র শারুনের সাবেক স্ত্রী সাইফা রহমান মিম, কথিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা, পিয়াসার বান্ধবী ও ঘটনাস্থল গুলশানের ফ্ল্যাট মালিকের স্ত্রী শারমিন ও তার স্বামী ইব্রাহিম আহমেদ রিপনকে মামলায় আসামি করা হয়। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]