• প্রচ্ছদ » » দেশের ছবিতে বিদেশি তারকা থাকা ভাবনার বিষয় : অমিত হাসান


দেশের ছবিতে বিদেশি তারকা থাকা ভাবনার বিষয় : অমিত হাসান

আমাদের নতুন সময় : 26/09/2021

ইমরুল শাহেদ: ঢাকার তারকারা কলকাতার ছবিতে কাজ করছেন। এটা কোনো নতুন কথা নয়। কলকাতার তারকারা ঢাকার চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। এটাও নতুন নয়। প্রশ্ন হচ্ছে, কেন কলকাতার তারকাদের ঢাকার ছবিতে প্রয়োজন হচ্ছে? এখানে পুরনো ও নতুন মিলিয়ে অনেকেই আছেন। অনেক তারকাই কাজের অভাবে ঘরে বসে অলস সময় কাটাচ্ছেন, তাদের কাজে লাগানোর চেষ্টা না করে বাইরে থেকে তারকা আমদানির কি কারণ থাকতে পারে?
বিনিময় নীতির বাইরে ঢাকার ছবিগুলো ভারতে মুক্তি পায় না। কিন্তু এদেশের প্রদর্শকরা সাংস্কৃতিক ঐক্য আছেÑ এমন দেশের ছবি আমদানি করে অর্থ উপার্জন খুব আগ্রহী। এর বিরুদ্ধে একসময় কাফনের কাপড় গায়ে জড়িয়ে মিটিং-মিছিলও করেছেন চিত্রকর্মীরা। এখন কি সে সময় বদলে গেছে? সাংস্কৃতিক আত্মশক্তি অর্জন করার চেয়ে তাকে শিথিল করে দেওয়া কতোটা অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাবে, তা বুঝা খুব কঠিন। যৌথ প্রযোজনার মাধ্যমে পঞ্চাশ-পঞ্চাশ শিল্পী-কুশলী ভাগাভাগি করার একটা নিয়ম আছে। কিন্তু সরাসরি তারকা আমদানি করতে গেলে সরকারের নির্ধারিত নিয়ম-নীতিও মেনে চলতে হবে। শিল্পী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও অভিনেতা অমিত হাসান বলেছেন, ‘যৌথ প্রযোজনার মাধ্যমে নির্মিত ছবিতে বিদেশি তারকার অংশগ্রহণ থাকাটা একেবারেই স্বাভাবিক। কিন্তু স্থানীয়ভাবে নির্মিত ছবিতে বিদেশি তারকা থাকাটা ভাবনার বিষয়। এসব ছবিতে দেশের স্থানীয় তারকারাও কাজ পেতে পারেন।’ কলকাতার ছবিতে বর্তমানে কাজ করছেন জয়া আহসান, মিথিলা এবং আজমেরী হক বাঁধন। একসময় নুসরাত ফারিয়াও অনেক ছবিতে কাজ করেছেন। সম্প্রতি ঢাকার ছবিতে কাজ করে গেছেন কলকাতার দর্শনা বণিক। অভিনেত্রী কৌশানী আসছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আসছেন বনি সেনগুপ্ত। ঢাকার তারকাদের কলকাতার ছবিতে কাজ করা নিয়ে সেখানকার তারকাদের মধ্যে একটা ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। সেখানকার গণমাধ্যমেই তার প্রতিফলন রয়েছে। প্রশ্ন আসতে পারে এ্যাপসে মুক্তি দেওয়া ছবি নিয়ে। এ্যাপস যেহেতু প্রদর্শনীর আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম, সেজন্য এ্যাপসের জন্য নির্মিত ছবিতে সব দেশের তারকারই সমাবেশ থাকতে পারে। তবে ছবিটি এ্যাপসের জন্য নির্মিত হচ্ছে কিনা, তার ঘোষণা নির্মাতার দেওয়া উচিত।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]