• প্রচ্ছদ » » ‘মন্দির এবং মসজিদ চিড় খাইয়া উঠিলো, মনে হইলো যেন উহারা পরস্পরের দিকে চাহিয়া হাসিতেছে’!


‘মন্দির এবং মসজিদ চিড় খাইয়া উঠিলো, মনে হইলো যেন উহারা পরস্পরের দিকে চাহিয়া হাসিতেছে’!

আমাদের নতুন সময় : 17/10/2021

দেখিলাম, আল্লার মসজিদ আল্লা আসিয়া রক্ষা করিলেন না, মা-কালীর মন্দির কালী আসিয়া আগলাইলেন না! মন্দিরের চূড়া ভাঙিলো, মসজিদের গম্বুজ টুটিল! আল্লার এবং কালীর কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া গেলো না। আকাশ হইতে বজ্রাঘাত হইলো না মুসলমানদের শিরে, ‘আবাবিলের’ প্রস্তর-বৃষ্টি হইলো না হিন্দুদের মাথার ওপর।
এই গোলমালের মধ্যে কতকগুলো হিন্দু ছেলে আসিয়া গোঁফ-দাড়ি-কামানো দাঙ্গায় হয়তো খায়রু মিঁয়াকে হিন্দু মনে করিয়া ‘বলো হরি হরিবোল’ বলিয়া শ্মশানে পুড়াইতে লইয়া গেলো এবং কতকগুলো মুসলমান ছেলে গুলি খাইয়া হয়তো দাড়িওয়ালা সদানন্দ বাবুকে মুসলমান ভাবিয়া ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু’ পড়িতে পড়িতে কবর দিতে লইয়া গেলো। মন্দির এবং মসজিদ চিড় খাইয়া উঠিলো, মনে হইলো যেন উহারা পরস্পরের দিকে চাহিয়া হাসিতেছে! -কাজী নজরুল ইসলাম, মন্দির ও মসজিদ, রুদ্র মঙ্গল, প্রকাশকাল ১৯২৭।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]