• প্রচ্ছদ » » এতোদিন কোনো কথা না বলে বিএমএ কী কারণে হুট করে এখন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে কথা বলতে গেলো?


এতোদিন কোনো কথা না বলে বিএমএ কী কারণে হুট করে এখন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে কথা বলতে গেলো?

আমাদের নতুন সময় : 01/12/2021

দীপু তৌহিদুল : নিউজে পড়লাম ‘বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ‘বাংলাদেশেই সম্ভব’ বলে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ)।’ এখন প্রশ্ন হচ্ছে এতোদিন কোনো কথা না বলে বিএমএ কী কারণে হুট করে এখন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে কথা বলতে গেলো? তারা কি ঘুমে ছিলেন? বেগম খালেদা জিয়া কি আজকে নতুন করে অসুস্থ হলেন? আমাদের জানামতে তিনি তো বাংলাদেশেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তাহলে দেশের ডাক্তাররা এতোদিন ধরে বাস্তবে তার কী চিকিৎসা করেছেন? বেগম জিয়া এখন না হয় প্রাইভেট হসপিটালে চিকিৎসাটা নিচ্ছেন, কিন্তু এর আগে সরকারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ)তেও তিনি চিকিৎসা নিয়েছিলেন, তাতে করে বেগম জিয়ার কী উপকারটা হয়েছিলো? বাংলাদেশের সকল বড় বড় ভিভিআইপিরা চিকিৎসা নিতে দেশের বাইরে নিয়মিতই যাচ্ছেন- কই তখন তো বিএমএ কোনো টুঁ শব্দও করে না, অথচ তারা বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে কথা বলে ফেলেছেন। তাদের আসলে এই বিষয় নিয়ে কোনো কথা বলার প্রয়োজন ছিলো কিনা এটাও প্রশ্ন। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) বাংলাদেশের চিকিৎসা পেশাজীবীদের জাতীয় সংগঠন। বিএমএ একটি রাজনৈতিক প্রভাবযুক্ত সংগঠন, নিয়মিত নির্বাচনও হয়। সকল রাজনৈতিক সরকারের আমলেই সরকার দলীয় প্রার্থীরাই এই সংগঠনকে লিড করে আসছে। এমনকি খোদ বিএনপি আমলেও এই সংস্কৃতির কোনো বদল ঘটেনি। বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ইস্যুতে বিএমএ’র বিবৃতিদানকারী চিকিৎসকদের নিয়ে নেটে সার্চ করুন- অবশ্যই বিব্রত হবেন, হওয়া উচিত। নৈতিকতার মানদণ্ডে এখন এই পর্যায়ে এসে বিএমএ’র বিবৃতি রাজনৈতিক হয়ে গেছে বলে মনে করি। পাশাপাশি বিএমএ’র বিবৃতিটাকে নিরপেক্ষ অবস্থানের নাগরিকরা একেবারেই ভিন্নভাবে গ্রহণ করবে বলে মনে করি। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]