• প্রচ্ছদ » » মনে হচ্ছে, সব ইস্যু একসঙ্গে করে ছাত্রদের দিয়ে একটি আন্দোলন দাঁড় করানোর অপচেষ্টা চলছে


মনে হচ্ছে, সব ইস্যু একসঙ্গে করে ছাত্রদের দিয়ে একটি আন্দোলন দাঁড় করানোর অপচেষ্টা চলছে

আমাদের নতুন সময় : 01/12/2021

আশরাফুল আলম খোকন : বিষয়টি আমার কাছে মোটেও ভালো ঠেকছে না। এমনিতেই সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে আন্দোলন চলছে। যারাই দুর্ঘটনা কবলিত হচ্ছেন তারা সবাই শিক্ষার্থী। একই সঙ্গে চলছে হাফ ভাড়ার আন্দোলন- এটাও শিক্ষার্থীদের। হত্যার বিচার নাকি হাফ ভাড়া, বিষয়গুলো কেমন কেমন মনে হচ্ছে। মনে হচ্ছে, সব ইস্যু একসঙ্গে করে ছাত্রদের দিয়ে একটি আন্দোলন দাঁড় করানোর অপচেষ্টা চলছে। ২৯ নভেম্বর রাতের রামপুরার দুটি ঘটনার কথাই বলি। দুপুরে টেলিভিশন ভবনের সামনে একজন কলেজ ছাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলো বাসের হেলপার। আহত হলেও ভাগ্যগুণে বেঁচে গেলেন। এরপর সড়ক অবরোধ হলো, ভাঙচুর হলো। বাসটি ছিলো ‘রাইদা পরিবহনে’র। ওই রেশ কাটতে না কাটতেই রাতে রামপুরা বাজারের কাছে একজন ছাত্র মারা গেলেন। এবারও স্পট লাইটে ‘রাইদা পরিবহন। যদিও ছাত্রটি মারা গেছে অনাবিল পরিবহনের বাসের চাপায়। যুগান্তরের নিউজ বলছে, ছেলেটিকে রাইদা পরিবহনের বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দেওয়া হয়। আর প্রথম আলো বলছে রাইদা আর অনাবিল বাস দুটি রেস করছিলো।
আরও অবাক করার বিষয়, মারা যাওয়ার পরপরই ১৪-১৫টি বাসে একসঙ্গে আগুন। নিহতের পরিবারের সদস্যরা বলছেন, তারা এর কিছুই জানেন না। সঙ্গে সঙ্গেই এতোগুলো বাসে আগুন দেওয়ার মতো এতো উত্তেজিত জনতা কোথা থেকে এলো? নাকি তারা প্রস্তুত ছিলেন? যাই হোক। বিষয়গুলো রহস্যজনক। আগেরবার পরিবহন আন্দোলনের সময় স্পট লাইট ছিলো ‘জাবালে নূর’ বাস সার্ভিস। তাদেরই দুটি বাসের প্রতিযোগিতায় স্কুল শিক্ষার্থীর প্রাণ গিয়েছিলো। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]