• প্রচ্ছদ » » শোভার সামনের দিনগুলো আরও শোভামণ্ডিত হোক


শোভার সামনের দিনগুলো আরও শোভামণ্ডিত হোক

আমাদের নতুন সময় : 04/12/2021

কাজী হানিয়াম মারিয়া

অনেকে শেয়ার করেছেন শোভার সংগ্রামের কথা। মাথার ওপর ছাদ নেই, একবেলা খেলে আবার কখন খাওয়া জুটবে সেটা ভাবতে হয়, তার মধ্যে এতো ভালো করার প্রবণতা আসাই একটা চমৎকার ব্যাপার। আমি পড়ার সময় ভাবছিলাম, আমাদের ছোটবেলায় আমরা ভালো করার অনুপ্রেরণা পেতাম স্কুলের পড়াশোনায়, খেলাধুলায় বা সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ভালো করাদের কাছ থেকে। কার বাবা কী করে, কতো বড় তাদের বাড়ি এসব আমরা জানতাম না। জানতাম কে কীভাবে পরিশ্রম করেছে, কতোটা খেটেছে।
আমাদের সময় মোটিভেশনাল স্পিকার নামক কিছু ছিলো না। আমরা ভালো করা ভাই-আপাদের দেখে শিখতাম আর সঙ্গে বাবা মায়ের ধমক-মাইর তো আছেই। তাই বলে আমি বলছি না ধমক-মাইর সবসময় খুব উপযোগী। ক’দিন আগে একজন সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সারের এভারেস্ট বিজয় দেখলাম। সাড়ে তিন লাখ টাকা দিয়ে চপার চড়ে এভারেস্টে ওঠে তার যে উচ্ছ্বাস দেখলাম, তা আমাকে একটুও নাড়া দিতে পারেনি। আমি আসলে ধরতেই পারছিলাম না টাকা দিয়ে আনন্দ কেনায় উচ্ছ্বাস কোথা থেকে আসে! মাঝে মাঝে কতোগুলো মোটিভেশনাল ভিডিও আসে পই পই করে হিসাব রাখার, আরও ভালো করতে হবে, ছয় ডিজিটের স্যালারি টাইপ কিছু অদ্ভুত কথাবার্তার। সব যেন শর্টকাটে হয়ে যাবে। পরিশ্রম এবং একাগ্রতার কথা থাকে না। শুধু পড়াশোনা নয়, যেকোনো কিছুতে ভালো করতে পরিশ্রমই একমাত্র উপায়। শর্টকাটে বা বাঁকা পথে কখনো সাফল্য আসে না। আসলেও তাতে আনন্দ থাকে না। যারা ভাবে বাঁকাপথেও সফলতা আসে, তারা আসলে সফলতার মানেই বোঝে না। আসলে নিজেকেই ঠিক করতে হবে, আমরা কাকে দেখে অণুপ্রাণিত হবো!
শোভার সামনের দিনগুলো আরও শোভামণ্ডিত হোক। যে কঠিন সময় সে পার করে এসেছে, তার সামনে সময় আর কী বাঁধা তৈরি করবে। তারপরও অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো। দুখের কথা: আমার আম্মা ছোটবেলায় বলতেন পড়াশোনা না করলে মানুষের বাসা ঝাড়ু দিয়ে আর বাসন মেজে খাবি। কাজ না করার ভয়ে পড়াশোনা তো করে ফেলসি এবং নিজের বাসার বাসন আমাকেই মাজতে হয়। সবসময় বড়দের সব কথা সত্যি হয় না। তবে নিজের বাচ্চার কাছ থেকে কাজ আদায় করতে হলে এসব উল্টাপাল্টা মোটিভেশন দিতে হয়। কধুর ঐধহরঁস গধৎরধ-র ফেসবুক ওয়ালে লেখাটি পড়ুন।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]