নতুন ধরনের মিডিয়া এসে কি পুরনো মিডিয়াকে বিলুপ্ত করতে পারে?

আমাদের নতুন সময় : 02/01/2022

লুৎফর রহমান হিমেল

নতুন ধরনের মিডিয়া এসে কি পুরনো মিডিয়াকে বিলুপ্ত করতে পারে? ইতিহাস বলে, না। অতীতেও নতুন ধরনের মিডিয়া এসেছে, তাতে প্রিন্ট মিডিয়া বিলুপ্ত হয়নি। প্রিন্ট মিডিয়ার পর এসেছিলো রেডিও। এরপর এসেছিলো টেলিভিশন। এখন নেট টিভি, নেট রেডিও, সোশ্যাল মিডিয়া তাদের দাপট দেখাচ্ছে। প্রিন্ট কি হারিয়ে গেছে? যায়নি। প্রিন্টের পর রেডিও যখন এসেছিলো, তখন অনেকেই মনে করেছিলো প্রিন্টের যুগ শেষ। সবাই রেডিওতে চলে যাবে, প্রিন্ট মিডিয়া থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে। প্রিন্ট থেকে পাঠক মুখ ফিরিয়ে নেয়নি। এরপর এলো টেলিভিশন। অনেকেই তখন বলেছিলো, রেডিও এবার শেষ। রেডিও কিন্তু শেষ হয়নি, রেডিও নতুন ফরমেটে এসেছে। রেডিওর শ্রোতা আরও বিস্তৃত হয়েছে। এখন যুক্ত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। শক্তিশালী এসব মাধ্যমও প্রিন্টকে মুছে ফেলতে পারবে না। উপরন্তু পত্রিকাগুলো তাদের প্রিন্ট ভার্সনের সঙ্গে অনলাইন যুক্ত করে নিজেদের শক্তিশালী করেছে। তবে প্রিন্ট মিডিয়াকে টিকতে হলে নিজেদের বদলাতে হবে। ডিজিটাল মিডিয়া, অনলাইন মিডিয়া বা সোশ্যাল মিডিয়া এখন অনেক সংবাদেরই উৎস। ভবিষ্যতে এসব মাধ্যম সংবাদের বড় উৎসে পরিণত হবে। তখন বদলে যাওয়া সময়ে প্রিন্ট মিডিয়াকে হতে হবে ভিউজ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস নির্ভর। গবেষণা, মতামত এসব দিয়ে পাঠকের মন জয় করতে হবে। প্রিন্ট মিডিয়াকে বিশদ তথ্য উপাত্ত বা নিউজ প্লাস দিতে হবে। না হলে টিকতে পারবে না তারা।
বদলে যাওয়া সেই সময়ে ডিজিটাল মিডিয়াও যখন পূর্ণতা পাবে, তখন তাদেরও অ্যানালাইসিসের দিকে যেতে হবে বেশি করে। সাংবাদিকতার ভবিষ্যৎ আসলে এখন অনেকটাই ভিউজ ও অ্যানালাইসিসের (মতামত ও বিশ্লেষণী সংবাদ) ওপর নির্ভরশীল। যারা এ দুটি দিকে গুরুত্ব দেবে, তারা টিকে থাকবে। সে মিডিয়া প্রিন্টই হোক, আর ডিজিটালই হোক। ফলে নতুন মিডিয়া এসে পুরনো মিডিয়াকে বিলুপ্ত করতে পারে না। মিডিয়া বিলুপ্ত হয় তার সৃজনশীলতা ধরে রাখতে না পারার কারণে, মিডিয়া বিলুপ্ত হয় নিজেকে বদলে ফেলতে না পারার অযোগ্যতায়। লেখক : সিনিয়র সাংবাদিক


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]