[১]সরকারের নেওয়া পদক্ষেপে বিলুপ্ত হওয়া থেকে ফিরে এসেছে পাকিস্তানের জাতীয় প্রাণী ‘মারখোর’

আমাদের নতুন সময় : 16/01/2022

মোহাম্মদ রকিব: [২] ২০১১ সালে পৃথিবীতে বিলুপ্তির লাল তালিকায় উঠে আসে ছাগল প্রজাতির প্রাণীটি। সেসময় এর আবাসস্থল আফগানিস্তান, ভারত ও পাকিস্তানের পার্বত্য অঞ্চলে এই পাহাড়ি ছাগলের সংখ্যা দাড়ায় মাত্র ২৫০০-তে। গ্রিন গ্লোবাল ট্রাভেল
[৩] এরপর প্রশাসনের দৃঢ় পদক্ষেপে বিলুপ্তির দ্বারপ্রান্ত থেকে পাকিস্তানের জাতীয় প্রাণীটির প্রত্যাবর্তন ঘটে।
[৪] প্যাঁচানো শিংয়ের জন্যেই এটি বিশ্বের ট্রফি হান্টারদের পছন্দের শীর্ষে। স্টার্টআপ পাকিস্তান
[৫] গেলো সপ্তাহে ২০২১-২২ ট্রফি হান্টিং প্রোগ্রামের অধীনে গিলগিট-বালতিস্তান অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের জেমস কেভিন ট্রফি পারমিটের জন্য ১ লাখ ৩১ হাজার ডলার এবং অ্যাস্টর জেলার বুঞ্জিতে মেক্সিকোর ভিজো গঞ্জালেজ জেসুস ১ লাখ ৩৬ হাজার ডলার ফি দিয়ে গিলগিট জেলার জুটিয়াল কনজারভেন্সি এলাকায় মারখোর শিকার করেন। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব


সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]